জন্ম নিবন্ধন সংশোধন আবেদন করার নিয়ম | Correction of Birth Registration

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন বা Jonmo Nibondhon Correction
জন্ম নিবন্ধন সংশোধন বা Jonmo Nibondhon Correction

জন্ম নিবন্ধন তথ্যে কোন ভুল থাকলে অনলাইনে আবেদন করে তা ৩ থেকে ৪ দিনেই সংশোধন করা যায়। কিভাবে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন (jonmo nibondhon) সংশোধন আবেদন করবেন?

আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদের তথ্যে ভুল রয়েছে? সহজেই জন্ম নিবন্ধনের ভুল সংশোধনের জন্য আবেদন করা যাবে অনলাইনের মাধ্যমে ।

জন্ম নিবন্ধন তথ্য সংশোধন আপডেট (Jonmo Nibondhon Jachai) সব তথ্য, কিভাবে জন্ম নিবন্ধন সনদের তথ্য সংশোধন করা যায় এবং সংশোধনের জন্য কিভাবে অনলাইনে আবেদন করবেন এ সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।

প্রথমে সংক্ষেপে জেনে নিই, কিভাবে জন্ম তথ্য সংশোধনের বা Jonmo Nibondhon Correction আবেদন করা হয়।

সর্বশেষ আপডেট ও সহযোগিতার জন্য WhatsApp যোগ দিন

WhatsApp ChannelJoin WhatsApp
Facebook PageFollow on Facebook

Table of Contents

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন বা Jonmo Nibondhon Correction করার নিয়ম

জন্ম নিবন্ধন সংশোধনের আবেদন করতে bdris.gov.bd/br/correction এই লিংকে ভিজিট করুন। এখানে জন্ম নিবন্ধন নম্বর দিয়ে সার্চ করুন। তারপর সংশোধিত তথ্য সঠিকভাবে দিয়ে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট Upload করে আবেদনটি সাবমিট করুন। আবেদনের প্রিন্ট কপি ও প্রয়োজনীয় প্রমাণপত্র সংশ্লিষ্ট জন্ম নিবন্ধন অফিসে জমা দিন।

আরও পড়ুন:

সংশোধন আবেদন সাবমিট করার পর অনলাইনে Jonmo Nibondhon Payment Fee জমা দিতে হবে। ফি পেমেন্টের চালান কপি আবেদনের সাথে জমা দিন। কতৃপক্ষ অনুমোদন করলে নিবন্ধন তথ্য সংশোধন হবে।

অবশ্যই নিশ্চিত হতে হবে আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ অনলাইন করা আছে কি না অনলাইনে Jonmo Nibondhon Songsodhon আবেদন করার আগে ।

ধাপ ১: জন্ম নিবন্ধন ওয়েবসাইটে ভিজিট করুন

প্রথমত, এই ওয়েবসাইট ভিজিট করুন https://bdris.gov.bd/br/correction । এবার মেন্যু থেকে এই অপশনে “জন্ম নিবন্ধন তথ্য সংশোধন আবেদন” ক্লিক করুন । তারপর নিচের ছবিটি লক্ষ্য করুন।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন বা Jonmo Nibondhon Correction
জন্ম নিবন্ধন সংশোধন বা Jonmo Nibondhon Correction

ধাপ ২: জন্ম নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন তথ্য বের করুন

এরপরে আপনার ১৭ ডিজিটের অনলাইন জন্ম নিবন্ধন নাম্বার ও জন্ম তারিখ বসিয়ে দিন। পরবর্তীতে অনুসন্ধান বাটনে (Online check) ক্লিক করে আপনার নিবন্ধন এর তথ্য যাচাই করুন।

যদি আপনার নিবন্ধন নম্বরটি ১৭ ডিজিটের না হয় সেক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট জন্ম নিবন্ধন অফিস/ উপজেলা কার্যালয় যোগাযোগ করে আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ অনলাইন করতে হবে। অনলাইন সম্পন্ন হলে ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নাম্বার প্রদান করা হবে।

Search বা অনুসন্ধান বাটনে ক্লিক করার পর আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদের কিছু তথ্য দেখতে পাবেন । এই জন্ম নিবন্ধনের তথ্যগুলো দেখে আপনার শিওর হয়ে “নির্বাচন” করুন বাটনে ক্লিক করে “কনফার্ম” করুন ।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন বা Jonmo Nibondhon Correction
জন্ম নিবন্ধন সংশোধন বা Jonmo Nibondhon Correction

ধাপ ৩: নিবন্ধন কার্যালয় বাছাই করুন

এ ধাপে আপনাকে নিবন্ধন কার্যালয় বাছাই করতে হবে, আপনি যেই সিটি কর্পোরেশন, ইউনিয়ন পরিষদ বা পৌরসভার অধীনে জন্ম নিবন্ধন সনদ করেছেন তার ঠিকানা উল্লেখ করতে হবে। এখানে পর্যায়ক্রমে সিলেক্ট করতে হবে । প্রথমে: আপনার দেশ, বিভাগ, জেলা, সিটি কর্পোরেশন বা উপজেলা সিলেক্ট করুন, তারপর পৌরসভা/ ইউনিয়ন সিলেক্ট করে অফিস যাচাই করতে হবে । এরপর “পরবর্তী” বাটনে ক্লিক করুন ।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন বা Jonmo Nibondhon Correction
জন্ম নিবন্ধন সংশোধন বা Jonmo Nibondhon Correction

ধাপ ৪: সংশোধনের তথ্য বাছাই করুন

এ ধাপে জন্ম নিবন্ধন সনদের যে তথ্যগুলো সংশোধন করতে চান তা ফরমে সংযোজন করে আপনার চাহিত শুদ্ধ তথ্যটি লিখুন। এভাবে করে আপনি যতগুলো তথ্য সংশোধন (Jonmo Nibondhon Jachai) করতে চান সেগুলো সিলেক্ট করে চাহিত শুদ্ধ তথ্যটি বসিয়ে দিন। বানান গুলো সাবধানে লিখুন ভুল যেন না হয় । নিচের ছবিটির দিকে লক্ষ্য করুন।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন বা Jonmo Nibondhon Correction
জন্ম নিবন্ধন সংশোধন বা Jonmo Nibondhon Correction

ধাপ ৫: সংশোধিত তথ্য ও সংশোধনের কারণ দিন সাথে প্রমাণপত্র আপলোড

নিচের ছবিতে লক্ষ্য করুন আমি এখানে 2 টি তথ্য সংশোধনের জন্য আবেদন করছি। আবেদনের কারণ হিসেবে ”পূর্বে ইংরেজিতে ছিল না” এটি সিলেক্ট করতে হবে। জন্ম নিবন্ধন সনদের জন্ম তারিখ সংশোধনের ক্ষেত্রে ক্যালেন্ডার থেকে জন্ম তারিখ সিলেক্ট করুন।

এরপর সংযোজন বাটনে ক্লিক করে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস এর স্ক্যান কপি আপলোড করুন। অথবা আপনার মোবাইল থেকে তোলা ছবি আপলোড করতে পারেন তবে ছবিগুলো ক্লিয়ার স্পষ্ট এবং যথেষ্ট আলোতে হতে হবে। ছবির লেখাগুলো অবশ্যই স্পষ্টভাবে বোঝাতে হবে। সংশোধিত তথ্যের উপর ভিত্তি করে ডকুমেন্টস আপলোড করুন । সংযুক্তি (প্রতিটি ফাইলের জন্য, সর্বোচ্চ ফাইল সাইজ 100 কিলো বাইট)

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন বা Jonmo Nibondhon Correction
জন্ম নিবন্ধন সংশোধন বা Jonmo Nibondhon Correction

ধাপ ৬: যদি ঠিকানা সংশোধনের করতে চান ও প্রমাণপত্র আপলোড

একটু নিচে গিয়ে, জন্মস্থান, স্থায়ী ও বর্তমান ঠিকানা এই ৩ টার মধ্যে যেটা সংশোধন করতে চান সেটাতে ক্লিক করুন। আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদের তথ্য অনুযায়ী জন্মস্থান, স্থায়ী ও বর্তমান ঠিকানার জেলা-উপজেলা সিলেক্ট করুন। যদি পরিবর্তন করার প্রয়োজন না হয় তাহলে এড়িয়ে যান। নিচের ছবিটির দিকে লক্ষ্য করুন।

এরপর সংযোজন বাটনে ক্লিক করে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস এর স্ক্যান কপি আপলোড করুন। অথবা আপনার মোবাইল থেকে তোলা ছবি আপলোড করতে পারেন তবে ছবিগুলো ক্লিয়ার স্পষ্ট এবং যথেষ্ট আলোতে হতে হবে। ছবির লেখাগুলো অবশ্যই স্পষ্টভাবে বোঝাতে হবে। সংশোধিত তথ্যের উপর ভিত্তি করে ডকুমেন্টস আপলোড করুন ।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন বা Jonmo Nibondhon Correction
জন্ম নিবন্ধন সংশোধন বা Jonmo Nibondhon Correction

ধাপ ৭: আবেদনকারীর তথ্য দিন ও ফোন ভেরিফাই করুন

সকল তথ্য পূরণ করার পরে আবেদনকারীর তথ্য দিতে হবে, তথা সংশোধনের জন্য যে আবেদন করেছে তার তথ্য সিলেক্ট করতে হবে । যদি আপনি নিজে আবেদনকারী হন সেক্ষেত্রে সিলেক্ট করুন “নিজ”। এভাবে জন্ম নিবন্ধন ব্যক্তির পিতা-মাতা হলে পিতা-মাতা ইত্যাদি সিলেক্ট করুন। 

আপন বাবা মা না হয়ে আইনগত অভিভাবক হলে অভিভাবক সিলেক্ট করুন। তবে নিজ/ পিতা বা মাতা ছাড়া অন্য কেউ আবেদন করলে তাদের জন্ম নিবন্ধন নম্বর ও ভোটার আইডি নম্বর দিতে হবে।

তারপর পেমেন্ট অপশন আসবে, এখানে “ফি আদায়” সিলেক্ট করুন । পুনরায় তথ্যগুলো চেক বা jonmo nibondhon check করে সাবমিট বাটনে ক্লিক করে আপনার আবেদনটি জমা দিন।

তারপর আবেদনকারীর নাম, ইমেইল ও ফোন নম্বর বসাতে হবে । এখন ওটিপি পাঠান বাটনে ক্লিক করুন । আপনার মোবাইলে নম্বরে ৬ ডিজিটের একটি ভেরিফিকেশন কোড আসবে। আপনার মোবাইলে আসা ৬ ডিজিটের ভেরিফিকেশন কোডটি লিখুন এবং সাবমিট বাটনে ক্লিক করে আপনার আবেদনটি জমা দিন।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন বা Jonmo Nibondhon Correction
জন্ম নিবন্ধন সংশোধন বা Jonmo Nibondhon Correction

ধাপ ৮: জন্ম নিবন্ধন সংশোধন আবেদন (Jonmo Nibondhon Abedon) পত্র প্রিন্ট

আবেদন জমার পর, আপনি একটি অ্যাপ্লিকেশন আইডি ও রেফারেন্স নম্বর পাবেন এগুলো সংগ্রহ করে রাখবেন। এরপর সংশোধন ফরম ডাউনলোড ও প্রিন্ট করে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদ/ পৌরসভা/ সিটি কর্পোরেশন অফিসে জমা দিন। যদি সংশোধন ফরম ডাউনলোড করতে না পারেন তবে আবেদন পত্রের নম্বর সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদ/ পৌরসভা/ সিটি কর্পোরেশন অফিসে জমা দিন। তাহলে তারা ফরম ডাউনলোড করে দিবে।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন বা Jonmo Nibondhon Correction
জন্ম নিবন্ধন সংশোধন বা Jonmo Nibondhon Correction

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে কত টাকা লাগে

সাধারণত ২০০-৩০০ টাকা লাগে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে। বাংলাদেশ সরকারের নীতিমালা অনুযায়ী জন্ম নিবন্ধন তথ্য সংশোধন তথা পূর্ণ মুদ্রণের জন্য নির্ধারিত ফি ধার্য করা আছে । জন্ম তারিখ সংশোধনের জন্য ফি ১০০ টাকা ও সরকারি নিধারিত ফি ৫০ টাকা । এছাড়াও অল্প কিছু অতিরিক্ত টাকা খরচ হতে পারে।

সরকারি নিধারিত ফি অনুসারে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে হলে কত টাকা লাগবে এই সম্পর্কে নিচে বিস্তারিত দেখানো হলো।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন ফি

সংশোধনের ধরণদেশেবিদেশে
তথ্য সংশোধনের জন্য ফি১০০ টাকা২ ডলার
শুধুমাত্র আপনার নাম, পিতার নাম, মাতার নাম, ঠিকানা (জন্ম তারিখ ব্যতীত) ইত্যাদি ও অন্যান্য তথ্য সংশোধনের জন্য ৫০ টাকা১ ডলার
বিনা ফিসে সরবরাহ করা হয় বাংলা ও ইংরেজি উভয় ভাষায় মূল সনদ বা তথ্য সংশোধনের পর সনদের কপিবিনা ফিসেবিনা ফিসে
বাংলা ও ইংরেজি উভয় ভাষায় সনদের নকল সরবরাহ৫০ টাকা১ ডলার

জন্ম নিবন্ধন সংশোধনের জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার জন্য সে সকল কাগজপত্র প্রয়োজন হয়, তবে সংশোধনের ধরন অনুযায়ী আলাদা আলাদা ডকুমেন্টস এর ভিন্নতা হয় সেটা সম্পর্কে নিচে আলোচনা করা হয়েছে বিস্তারিত।

সংশোধিত তথ্যপ্রয়োজনীয় কাগজপত্র
নাম, জন্ম তারিখ ও পিতা-মাতার নামজাতীয় পরিচয় পত্র
শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ
পাসপোর্টের কপি
পিতা-মাতার জন্ম নিবন্ধন বা জাতীয় পরিচয়পত্র
টিকা কার্ড/ হাসপাতালের সনদ
স্থায়ী ঠিকানা পরিবর্তনকাউন্সিলর বা চেয়ারম্যানের প্রত্যয়নপত্র
স্থায়ী ঠিকানার হালনাগাদ কর পরিশোধের রসিদ
বর্তমান ঠিকানা পরিবর্তনবিদ্যুৎ/ ইউটিলিটি বিলের কপি

জন্ম নিবন্ধন বয়স সংশোধন করার নিয়ম

অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন জন্ম নিবন্ধন সনদের বয়স সংশোধনের জন্য। জন্ম নিবন্ধন সনদের শুধুমাত্র দিন এবং মাস সংশোধন করতে পারবেন প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস সংযুক্ত করে । জাতীয় পরিচয় পত্র, শিক্ষাগত যোগ্যতার সার্টিফিকেট অনুযায়ী জন্ম নিবন্ধন এর বয়স ও বছর সংশোধন করতে পারবেন না।

জন্ম নিবন্ধন নাম সংশোধন করার নিয়ম

একই পদ্ধতিতে অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন জন্ম নিবন্ধন সনদের নাম সংশোধন করার জন্য। সঠিকভাবে আবেদন করে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট সাবমিট করার পরে, ১৫ দিনের মধ্যেই আবেদন অনুমোদন হয়ে যায় ।

সংশোধনের ধরন ও শিশু/ব্যক্তির বয়স অনুযায়ী আলাদা আলাদা ডকুমেন্টস প্রয়োজন হতে পারে, শুধু জন্ম নিবন্ধন সনদে নিজের নাম সংশোধন করার ক্ষেত্রে ।

জন্ম নিবন্ধনে ইংরেজি তথ্য সংযোজন

পূর্বের সকল জন্ম নিবন্ধন সনদ গুলোতে ইংরেজি তথ্য সংযুক্ত করা ছিল না, পরবর্তীতে সময়ে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে সকল জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাটাবেজে বাংলা তথ্যের পাশাপাশি ইংরেজি তথ্যগুলোও সংযোজন করা হয়।

আপনারা অনলাইনে আবেদন করে নিজেই ইংরেজি তথ্য সংযুক্ত করে নিতে পারবেন যারা এখনো জন্ম নিবন্ধনে ইংরেজি তথ্য সংযোজন করেননি।

জন্ম নিবন্ধনে পিতা/মাতার নাম সংশোধন

আবেদনকারীর জন্ম নিবন্ধনের তথ্য সংশোধন করবেন তার শিক্ষাগত যোগ্যতার সার্টিফিকেট সবথেকে বেশি গ্রহণযোগ্য হবে যদি জন্ম নিবন্ধন সনদে পিতা মাতার নাম সংশোধনের করা হয় । পিতা মাতার ভোটার আইডি কার্ড এবং অনলাইন জন্ম নিবন্ধন সনদ দিয়ে আবেদন করতে পারবেন।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন আবেদন অবস্থা

জন্ম নিবন্ধন তথ্য সংশোধন আবেদনের বর্তমান অবস্থা অনলাইনের মাধ্যমে জানতে পারবে। এজন্য প্রয়োজন হবে শুধুমাত্র অ্যাপ্লিকেশন আইডি ও জন্ম নিবন্ধন নাম্বার।

এই লিংকে https://bdris.gov.bd/br/application/status ভিজিট করুন তথ্য সংশোধন আবেদনের অবস্থা জানার জন্য । জন্ম নিবন্ধন নাম্বার ও অ্যাপ্লিকেশন আইডি বসিয়ে দিন আবেদনের ধরন সিলেক্ট করে । পরবর্তীতে “দেখুন” বাটনে ক্লিক করুন ।

ক্যাটাগরিজন্ম নিবন্ধন
নতুন জন্ম নিবন্ধনBirth Certificate Application
জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোডBirth Certificate Download
জন্ম নিবন্ধন যাচাইVerification of Birth Registration
হোমপেজGovtBD

2 responses to “জন্ম নিবন্ধন সংশোধন”
  1. রফিকুল ইসলাম Avatar
    রফিকুল ইসলাম

    পূর্বেই আমার জন্মনিবন্ধন বাংলায় অনলাইন করা হয়েছিল অন্য ফোন নাম্বার দিয়ে, বর্তমানে আরেকটি ফোন নাম্বার দিয়ে কিভাবে জন্ম নিবন্ধন ইংরেজিতে সংশোধন করব, জানালে উপকৃত হব।

    1. GovtBD Avatar

      আপনি একই ভাবে ইংরেজিতে সংশোধনের নতুন ফোন নম্বর দিয়ে আবেদন করতে পারবেন। কোন সমস্যা নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *